মুঘল নেতা বীরবল ও পন্ডিতের গল্প

কৃতজ্ঞতাঃ  মাসুদ রানা (ফেসবুক থেকে নেয়া)

পাড়ার স্কুলে যখন পড়তাম তখন একটা সমস্যা ছিল , “ভাই সমস্যা”। যে একটু মাস্তান টাইপের ছিল , সে ডেকে নিয়ে বলত , “এখন থেকে আমাকে ভাই বলে ডাকবি।” একদিন স্কুল ছুটি শেষে দেখলাম এমনই এক স্বঘোষিত সহপাঠী বড় ভাই , স্কুলের পুকুর পাড়ে দাঁড়িয়ে আছে। সে জনে জনে সবাইকে ডাকছে। কেউ যদি বলে, “কিরে জনি, ডাকলি কেন ?”। ভাই না বলার অপরাধে তাকে, জনি ধাক্কা দিয়ে পুকুরে ফেলে দিচ্ছে। আমি জনিকে ভয় পেতাম। ওকে এড়িয়ে চলতাম। যদি কখন ও কথা বলতেই হতো , ভাই এবং আপনি করে বলতাম। মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলাই ভালো ছিল।

কয়েকদিন আগে এক পাবলিক , উপজেলার এক বড় কর্মকর্তাকে স্যার বলে নাই বলে , স্যারের লাত্থি খেয়েছেন।
এক উন্নয়ন কর্মী জেলা প্রশাসক এর নিকট তথ্য চেয়ে আবেদন করেছেন , উনাদেরকে কি স্যার বলা বাধ্যতামূলক ? আইনে কি কিছু আছে এই ব্যাপারে ?
কমন সেন্স বলে আইন থাকেল উল্টোটা থাকবে। কর্মচারীকেই সম্মান করতে হবে মালিকদের। তারমানে এই না যে, মালিক কর্মচারীকে অবজ্ঞা করবে।

যদি এই একই ঘটনায় জাপানের দিকে তাকাই, জাপানে, যেকোনো অফিস এ সম্ভবত প্রধান মন্ত্রীর অফিসেও যদি কোন নাগরিক কোন কাজ এর জন্য যান, তবে তাকে অনেক সম্মানের সাথে কাজ টি করে দেয়া হয়। যদি কর্মকর্তা আর সার্ভিস গ্রহীতার মধ্যের বসার আসন গত উচ্চতার পার্থক্য হয় তবে, জাপানে কর্ম কর্তা সমতা বজায়ে রাখার জন্য আসন ছেড়ে নিচে নেমে আসবেন এটা আমরা দেখেছি। এটা ই হল প্রকৃত কর্মকর্তা র কাজ। দেশ কে আর অনেক সময় নিতে হবে এই শিক্ষা বা বাবস্থা চালু করার জন্য। আমরা আশাবাদী।

কিছু মানুষ আছে যারা যেচে সম্মান নিতে চায়। যেহেতু তাদের কেউ দাম দিতে চায় না। এ প্রসঙ্গে একটা গল্প আছে। একদিন, মোঘল সম্রাট আকবরের রাজ সভার নব রত্নের একজন রাজা বীরবল কে, এক ব্রাহ্মণ এসে অনুরোধ করছে, সাহেব! আমাকে কেউ পণ্ডিত বলে ডাকে না। আমার পিতৃপুরুষ পণ্ডিত ছিলেন। আমি সেটা হাইয়ে ফেলছি দিন দিন। তাই আমাকে যেন সবাই পণ্ডিত বলে, তার বাবস্থা করে দিন। তারপর রাজা বীরবল বল ও এই কথা, ঠিক আছে।  ২ দিন পর ই আপনাকে সবাই পণ্ডিত বলে ডাকবে। এজন্য আপনি আমার কথা মত কাজ করবেন ।

গল্পটি ছবিতে নিম্ন রুপঃ

মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল

মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল মাইর খাওয়ার চেয়ে ভাই বলে ডাকাই ভাল

হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ফিরে পেতে, অনুশীলন দরকার। ক্ষমতা দেখিয়ে বা কৌশলে সম্মান আদায় করা গেলেও সেটা হিংসা বৃদ্ধি করে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Show Buttons
Hide Buttons
%d bloggers like this: